অ্যাপেলকে পেছনে ফেললো শাওমি

মহামারীর শুরুর দিকে বিশ্বের বিভিন্ন বড় বড় কম্পানির বাজারে ধস নামে। এর কাতারে ছিলো সব ধরনের বড় বড় স্মার্টফোন কম্পানিগুলো। তবে বর্তমান সময়ে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে স্মার্টফোনের বাজার। সাম্প্রতি "ইন্টারন্যাশনাল ডেটা করপোরেশন" (আইডিসি) চলতি বছরের বিশ্বব্যাপি স্মার্টফোন শিপমেন্ট রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। রিপোর্টে দেখা যায় পূর্বের মতো শীর্ষ স্থানে অবস্থান করছে স্যামসাং ও হুয়াওয়ে। তবে অবাক করার মতো একটা বিষয় হলো এই প্রথমবারের মতো অ্যাপেলকে পেছনে ফেলে তৃতীয় অবস্থানে চলে এসেছে চাইনিজ টেক জায়ান্ট শাওমি। তবে শাওমির এই অর্জন যে একেবারই অসম্ভব তেমনটি নয়।


প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে, চলতি বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে অর্থাৎ জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী সর্বমোট ৩৫৩.৬ মিলিয়ন স্মার্টফোন সরবারহ করা হয়েছে। যার মধ্যে ৮০.৪ মিলিয়ন ডিভাইস সরবারহ করে স্যামসাং অবস্থান করছে প্রথম স্থানে। এ সময় কম্পানিটির শেয়ার ছিলো ২২.৭ শতাংশ। ৫১.৯ মিলিয়ন স্মার্টফোন সরবারহ করে দ্বিতীয় অবস্থানে আছে হুয়াওয়ে। প্রতিষ্ঠানটি মার্কেট শেয়ার ছিলো ১৪.৭ শতাংশ। তবে এই প্রথমবারের মতো অ্যাপেলেকে পিছনে ফেলে হুয়াওয়ের নিচে তৃতীয় স্থানে স্থান করে নিয়েছে শাওমি। শাওমি সরবারহ করেছে ৪৬.৫ মিলিয়ন ডিভাইস। এ সময় কম্পানিটির মার্কেট শেয়ার ছিলো ১৩.১ শতাংশ। ৪১.৬ মিলিয়ন স্মার্টফোন সরবারহ করে চতুর্থ অবস্থানে আছে অ্যাপল। এবং ৩১.৫ মিলিয়ন স্মার্টফোন সরবারহ করে পঞ্চম স্থাথে আছে ভিবো কম্পানিটি। বিশ্ববাজারে কম্পানি দুইটির মার্কেট শেয়ার ছিলো যথাক্রমে ১১.৮ এবং ৮.৯ শতাংশ। বাকি স্মার্টফোন ব্রান্ডগুলো ২৮.৮ শতাংশ মার্কেট শেয়ার দখল করে আছে। ২০১৯ সালে জুলাই-সেম্পেম্বর মাসে বিশ্বব্যাপী বিক্রিত স্মার্টফোনের পরিমাণ ছিলো ৩৫৮.৫ মিলিয়ন। তবে এবছর জুলাই-সেপ্টেম্বর মাসে তৃতীয় প্রান্তিকে স্মার্টফোন সরবারহ করা হয়েছে ৩৫৩.৬ মিলিয়ন। যা গত বছরের তুলনায় প্রায় ১.৩ শতাংশ কম। যদিও লকডাউনে যতটা ধসের কথা ভাবা হয়েছিলো তার তুলনায় এর পরিমাণটা অনেক কম। রিপোর্টে দেখা যায় যে স্যামসাং এবং শাওমির মার্কেট শেয়ার বেড়েছে যথাক্রমে ০.৯ এবং ৪ শতাংশ, অন্যদিকে গত বছরের তুলনায় হুয়াওয়ের মার্কেট শেয়ার কমেছে ৩.৯ শতাংশ এবং অ্যাপলের কমেছে ১.২ শতাংশ। অ্যাপলের এমন পিছিয়ে পড়ার প্রধান কারন কি। সেটাই এখন জানার বিষয়।
আমাদের অনুপ্রাণিত করতে
বন্ধুদের মাঝে নিউজটি শেয়ার করুন

Post a Comment

0 Comments