Header AD

ফ্রিতে ছবি রাখবে না google



যাদের স্মার্টফোনের স্টোরেজ কম তাঁরা কোন ভাবনা ছাড়াই গুগলের উপর নির্ভর করে। অনেকে ব্যবহার করে থাকে গুগলের গুগল ড্রাইভ সার্ভিস। আবার অনেকে ব্যবহার করেন গুগল ফটোজ সার্ভিস। নিজেদের ছবি নির্ভাবনায় রেখে দেন গুগল ফটোজে। আর গুগলের এই জনপ্রিয় সার্ভিসটি পেতে গুনতে হতো না কোন টাকা-পয়সা। কিন্তু দুঃখ জনক হলেও সত্য গুগলের এই জনপ্রিয় সার্ভিসটা আর ফ্রি থাকছে না। গুগল বিনা পয়সাতে আর কোন ছবি রাখবে না। তবে এখনি গুনতে হচ্ছে না কোনো অর্থ। ২০২১ সালের জুন মাস পর্যন্ত সময় দিচ্ছেন গুগল প্রতিষ্ঠানটি।

জি-মেইলের সব ব্যবহারকারীদের কাছে এখন থেকে আনুষ্ঠানিক ভাবে মেইল পাঠানো শুরু হয়েছে। গুগল অ্যাকাউন্ট খোলার সাথে সাথে ব্যবহারকারীকে ১৫ জিবি স্টোরেজ ফ্রি দেওয়া হয়। পূর্বে গুগল ফটোজে যে ছবি কিংবা ভিডিও রাখা হতো সেটি এই ১৫ জিবি স্টোরেজের জাইগা দখল করত না। তবে গুগল ঘোষণা দিয়েছে ২০২১ সালের জুন মাস থেকে গুগল ফটোজে আপলোড করা ছবি কিংবা ভিডিও এই ১৫ জিবি স্টোরেজের হিসাবের মধ্যে ধরা হবে।
গুগল অফিসিয়ালভাবে যে মেইল পাঠাচ্ছে সেখানে আরও বলা হয়েছে, যদি কেউ ফ্রিতে দেওয়া ১৫ জিবির বেসি জাইগা ব্যবহার করেত চাই তবে সেটির ক্ষেত্রে গুগলের কাছ থেকে নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ দিয়ে স্টোরেজ কিনে ব্যবহার করতে হবে। গুগল ড্রাইভের এবং জিমেইলের অতিরিক্ত স্টোরেজ ব্যবহার করতে হলে গুগলের কাছ থেকে সেটি কিনে নিতে হয়। এখন থেকে গুগল ফটোজের অতিরিক্ত জাইগা ব্যবহার করতে গেলেও গুনতে হবে টাকা।
তবে এখনই ফ্রি সার্ভিস ব্যবহারের সুযোগ হারাচ্ছে না গ্রাহকরা। আগামী বছরের ১ জুন পর্যন্ত গুগল ফটোজের ফ্রি সার্ভিস ব্যবহার করা যাবে। এর ভেতরে যাদের ফটোজ অ্যাপের সে ছবি বা ভিডিও আছে সেগুলো ব্যাকআপ করে রাখার সুযোগ পাবেন গ্রাহকরা।




প্রযুক্তিবিদরা মনে করছেন, গুগল চাইছে তাদের সেবাগুলো মানুষ আরও বেশি ব্যবহার করুক তবে সেটি ফ্রিতে নয় অর্থ দিয়ে। গুগল ওয়ান নামের সেবার সাবসক্রিপশন বাড়াতেই এ পদক্ষেপ নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

গুগলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে যে তারা তাদের ব্যবসায় বড় ধরনের পরিবর্তন আনতে চলেছে। গুগল ফটোজ সেবার এ পরিবর্তনটি তাদের ভেতর অন্তঃভুক্ত।
এ পরিবর্তনের বিষয়ে গ্রাহকদের আগে থেকে জানিয়ে দেওয়া হচ্ছে, যাতে তারা এই পরিবর্তনের সাথে সহজে মানিয়ে নিতে পারে।
২০২১ সালের জুন মাস থেকে গুগল স্টোরেজের নতুন এ সেবা চালু হবে। এবং নতুন এ সেবাতে ব্যবহারকারী খুব সহজে কালো, অস্পষ্ট এবং অনাকাঙ্ক্ষিত ছবি এবং ভিডিও সরিয়ে ফেলতে পারবেন। ব্যবহারকারীরা গুগলের অতিরিক্ত স্টোরেজ গুগল ওয়ান নামের সেবা থেকে কিনে ব্যবহার করতে পারবেন।




Post a Comment

Post a Comment (0)

Previous Post Next Post

ads

Post ADS 1

ads

Post ADS 1