Header AD

কুমিল্লার ঐতিহ্য ধারণকারী স্থাপনাগুলোর মধ্যে পর্যটকদের প্রথম পছন্দ কুমিল্লা শালবন বিহার

 কুমিল্লা শালবন বিহার


কুমিল্লার ক্যাডেট কলেজে মোড় থেকে কিছু দুর সামনের দিকে গেলেই রাস্তার বাম পাশে খোলা প্রান্তরের দেখা মিলবে যেখানে রয়েছে ধ্বংস প্রাপ্ত শালবন বিহারেরপূর্বে এই স্থানটি শালবন রাজবাড়ি নামে পরিচিত ছিল কিন্তু এই স্থানটি খনন করার পর ১১৫টি ভিক্ষুকক্ষ বিশিষ্ট প্রতি টি পাশে ৫৫০ফুট লম্বা একটি বদ্ধ বিহার উন্মোচিত হয়তাই একে শালবন বিহার নামে অবহিত করা হয়বিহারের মধ্য ভাগে একটি মন্দির এবং  উত্তরের পাশের মাঝামাঝি স্থানে প্রবেশ তোরণ কুমিল্লার শালবন বিহারের প্রধান আকর্ষণ এই বিহারে টি এবং কেন্দ্রীয় মন্দিরে টি নির্মাণ যুগের প্রমাণ পাওয়া গেছে এই বিহারে খননে প্রাপ্ত একটি পোড়ামাটির মুদ্রক থেকে জানা যায় এই বিহারটি দেব বংশের চতুর্থ রাজা ভবদেব খ্রীষ্টীয় আটের শতকে নির্মাণ করেছিলেন তার মানে এই অর্থ দাড়াই যে এর আসল নাম ছিল ভবদেব মহাবিহার
কুমিল্লা শালবন বিহার




কুমিল্লার পথ

ঢাকা থেকে সড়ক পথে কুমিল্লায় যেতে সময় লাগে ২;৩০মিনিট যদি রাস্তা  যদি ভালো বা জ্যাম মুক্ত থাকেআর যদি রাস্তায় জ্যাম থাকে তাহলে তো ৫-৬ঘন্টা লেগে যেতে পারে. সব থেকে ভালো হয় ট্রেনে গেলে. ট্রেনে ৩;৩০মিনিটের মধ্যে আপনি কুমিল্লায় পৌছাতে পারবেন আপনি বাস বা ট্রেনে যেটাতেইআসুননাকেনকুমিল্লায়এসেইযেটাআপনারচোখেপড়বেতাহলকিম্ভূতকিমাকারদেখতেএকধরণেরব্যটারিচালিতরিক্সসাকুমিল্লায়নাকিএটারসংখ্যারিক্সসারচেয়েঅনেকরবেনকুমিল্লায় পৌছায়ে গাড়ি থেকে নেমেই কিম্ভূত কিমার অটো যান চড়ে শালবন বিহারের উদ্দেশ্য রওনা দিতে হবে কিমারে ওঠার পর ২০-৩০ মিনিট পরেই শালবন বিহারে পৌছায় যাবেন তার পর দেখতে পাবেন বিস্তন্য এলাকা জুড়ে কুমিল্লার শালবন বিহার অরপে ভবদেব এর রাজবাড়ির ধ্বংস স্তুব এটি অনেক সুন্দর দেখতে  প্রতিদিন হাজার হাজার পর্যটক আছে দেশ-বিদেশের বিভিন্ন স্থান থেকে এখান কার পরিবেশ টা খুবই শান্তশিষ্ট আপনি ওখানে গেলে অন্য রকম এক অনুভুতি অনুভব কররছে এছাড়া এর আশে-পাশে অনেক গুলো পর্যটক স্পট রয়েছে যেগুলো দেখার জন্য আপনাকে হাতে অনেক সময় রাখতে হবেনয়লে সম্পুন্ন এলাকাটি ঘুড়ে শেষ করতে পারবেন না এগুলো অনেক বড় এলাকা জুড়ে স্থির ভাবে কয়েক শত বছর ধরে এখনো পর্যন্ত মানুষকে আকৃ্ষ্ট করছে

শালবন বিহার ভ্রমণের বাস্তব অভিজ্ঞতা

এখন আমি কুমিল্লার শালবন বিহার ভ্রমণের বাস্তব অভিজ্ঞতা শেয়ার করবো--- কয়েক এক মাস আগের ঘটনা , তখন আমি শালবন বিহার দেখেনি আমার স্নাতক পরীক্ষা শেষ,এমন সময় ঢাকা থেকে আমার বন্ধু আর আমি সিন্ধান্ত নিলাম যে, আমরা কুমিল্লা ভ্রমণ করবো যেই কথা সেই কাজ বেরিয়ে পরলাম কুমিল্লা ভ্রমণে ঢাকা গাবতলী বাস টারমিনাল থকে বাসে করে কুমিল্লায় পৌছায় তারপর বাস থেকে নামার পর কিমাকার গাড়িতে করে শালবনের উদ্দেশ্য রওয়া দিলাম কিছুক্ষণের মধ্যেই আমরা শালবন বিহারে পৌছায় গেলাম তারপর বিহারের প্রধান ফটক দিয়ে ভিতরে ঢুকলাম দেখলাম বিহারের ভিতরের অংশটা অনেক বেশি সুন্দর  আপনি এখানে আসলে অন্য রকম এক অনুভুতি অনুভব করবেন

Post a Comment

Post a Comment (0)

Previous Post Next Post

ads

Post ADS 1

ads

Post ADS 1